সুন্দর সুন্দরবন, কুৎসিত মানুষ – শেষ

সুন্দরবনে সবচেয়ে বিরক্ত হয়েছি করমজলে যেয়ে, কুমির প্রজনন কেন্দ্র অসভ্য মানুষের ভিড়ে সরগরম, একটা বানর বা পাখি দেখলেই ছুটে যেয়ে যাবতীয় নির্যাতনের চেষ্টা করা ছিল খুবই সাধারণ একটা ব্যাপার, বিরিয়ানির মৌ মৌ গন্ধ ভরা দূষিত বাতাসে এই নিরীহ বানরটিকে বজ্জাত মানুষদের করা সবচেয়ে সুশীল প্রশ্ন ছিল- এই বান্দর, তোর পুটকি লাল কেন?

কী আশা রাখব আমরা মানুষের কাছে, তাদের আকাশচুম্বী লোভ, পাতালভেদী চাহিদার কাছে? অন্তত নিজেদের কাছে যেন আমরা এতটুকু আশা রাখতে পারি যে সুন্দরবনে সুন্দর আমরা নষ্ট করব না, সেখানে যেয়ে হরিণ মাংসের খোঁজে বন উজাড় করব না, বিরিয়ানি প্যাকেট ফেলে খাল ভরাট করব না।

অপ্রাপ্তবয়স্ক শিকরে
গর্তের রাজা
বাঘ, সাবধান!
বীজ
তিলা নাগঈগল
রশ্মি
শ্বাসমূল
জীবনের অন্বেষণে
সরলতা

(চলবে)


সংগৃহীত : তারেক অনু | অনুভ্রমন

Leave a Reply